শিল্প হচ্ছে আত্মার মত । কেউ বলেন আত্মা দেখা যায়না, কিন্তু আছে । কেউ বলেন আত্মাকে দেখাও যায় মাপাও যায় । কেউ বলেন শাস্তি পেয়ে আত্মা দেহে পরাধীন হয়ে বাস করে, কেউ তা মানেননা । আবার বিজ্ঞানমতে আত্মা বলে কিছু নেই, আবার কেউ বলেন (পরম)আত্মাই বিজ্ঞানের মূলে । নানামুনির নানা মত । যেহেতু এর সঠিক সংজ্ঞা নির্ধারণ করা যায়না তাই ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্রে এখন অব্দি এই অধিকার বজায় আছে যে, প্রত্যেকে নিজের আত্মা-বিশ্বাস নিজে নির্ধারণ করতে পারবে, ইচ্ছে হলে অবিশ্বাসও করতে পারে । শিল্পেরও সঠিক সংজ্ঞা নির্ধারণ করা সম্ভব নয়, সাহিত্যও এর ব্যতিক্রম নয় । কবিতা অনেক রকম । ছন্দবদ্ধ কথাই কবিতা - একথা অসত্য । তবে গদ্য ও পদ্যের পার্থক্য আমরা বুঝি, পদ্যে ছন্দ থাকা আবশ্যক । গদ্যে এমন কোন নিয়ম নেই ।

কেউ বলেন গদ্য হচ্ছে হাঁটা আর কবিতা হচ্ছে নাচা । হাঁটা মানেই কোথাও পৌঁছান, নাচার কোন উদ্দ্যেশ্য নেই, মনের আনন্দে লোকে নাচে । গদ্যের নির্দিষ্ট কিছু বলার দায় থাকে, কবিতার সে দায় নেই । কবিতা শিল্প, মনে নাড়া দিলেই সে সফল ।

তাহলে কি গদ্য সাহিত্য নয় ? গদ্যও সাহিত্য, তবে সব গদ্য সাহিত্য নয় । অর্থ প্রকাশ করে এমন কিছু লিখলেই গদ্য লেখা হল, ছন্দ মিলিয়ে লিখলেই সে লেখা কবিতা হবে এমন বলা যায়না । তাহলে কিভাবে বুঝব কোন গদ্য সাহিত্য আর কোন গদ্য সাহিত্য নয় ? এই প্রশ্নের উত্তরে আবার চলে যেতে হবে সাহিত্য কী - সেই প্রসঙ্গে । এই পোষ্টে নাই বা করলাম সে বিতর্ক । তবে ঘড়ি, ফ্যান, কলমের ম্যানুয়াল আর রবীন্দ্রনাথের প্রবন্ধের মধ্যেকার পার্থক্য তোমরা একটু চেষ্টা করলেই বুঝতে পারবে ।

কবিতা লেখা শেখানো সম্ভব না হলেও, গদ্য ও পদ্য দুটোই লিখতে শেখা সম্ভব । পদ্য আমরা পরে আলোচনা করব, আগে গদ্য লেখাটা চাঙ্গা হোক । পরীক্ষায় এখন পদ্য লিখতে হয়না, কথাও পদ্যে বলতে হয়না ।

গদ্য লিখতে গেলে প্রথমেই যে জিনিসটা জানতে হয় তা হচ্ছে গদ্য কতরকম ? গদ্যকে দুই ভাবে ভাগ করা যায় - প্রকার ভেদে ও গঠন ভেদে । প্রকার ভেদে গদ্য তিন রকমের – বর্ননাত্মক গদ্য বা Descriptive Prose, আখ্যানধর্মী গদ্য বা Narrative Prose, এবং ব্যাখ্যাধর্মী গদ্য বা Expository Prose । আজকের পোষ্টে আমরা কেবল প্রথমটি পড়ার চেষ্টা করব ।

Descriptive Prose

Descriptive Prose বা বর্ণনাত্মক গদ্য দিয়ে যেকোনো বস্তু, ব্যক্তি বা ঘটনার ঠিক যেভাবে প্রতীয়মান হয় সেভাবে বর্ননা দেওয়া হয় । অথবা লেখকের কল্পনায় ঠিক যেভাবে কোনকিছু আসে ঠিক সেই ভাবে পাঠকের কাছে পৌঁছে দেওয়ার কাজই করে বর্ণনাত্মক গদ্য । মনে রেখ, Description এমন ভাবে দিতে হবে যেন পাঠকের চোখের সামনে অনায়াসে ভেসে ওঠে, তোমার কাজ পাঠককে দেখানো, পাঠককে স্রেফ বলা নয় । চল দুটো Descriptive Prose এর উদাহরণ পড়ে বোঝার চেষ্টা করি বর্ণাত্মক গদ্য ঠিক কিরকম হয় । প্রথম উদাহরণটি একটি সাহিত্যমান সম্পন্ন লেখা অপরটা নিছক খবরের কাগজের রিপোর্ট থেকে নেয়া । Literary এবং Non-literary গদ্যের পার্থক্যটাও কিছুটা বুঝতে পারবে এতে ।

Mr. Squeers' appearance was not prepossessing. He had but one eye, and the popular prejudice runs in favour of two. The eye he had was unquestionably useful, but decidedly not ornamental: being of a greenish grey, and in shape resembling the fan-light of a street door. The blank side of his face was much wrinkled and puckered up, which gave him a very sinister appearance, especially when he smiled, at which times his expression bordered closely on the villainous. His hair was very flat and shiny, save at the ends, where it was brushed stiffly up from a low protruding forehead, which assorted well with his harsh voice and coarse manner. He was about two or three and fifty, and a trifle below the middle size; he wore a white neckerchief with long ends, and a suit of scholastic black; but his coat sleeves being a great deal too long, and his trousers a great deal too short, he appeared ill at ease in his clothes, and as if he were in a perpetual state of astonishment at finding himself so respectable. ( চার্লস ডিকেন্স এর Nicholas Nickleby থেকে নেওয়া )

Glossary
prepossessing: দ্যোতক / উদ্দীপক
puckered up: ভাঁজ ও দাগে ভরা
sinister: অশুভ
protruding: অভিক্ষিপ্ত হওয়া
scholastic: পাণ্ডিত্য পূর্ণ

এখানে Mr. Squeers এর চারিত্রিক বর্ননা পড়লে যেন মনে হয় Mr. Squeers চোখের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন, এটি একটি আদর্শ Literary Descriptive Prose এর উদাহরণ । এবার চল একটা Non-Literary Descriptive Prose পড়া যাক ।

Ishtiaq Ali is a thin man of medium height. He looks older than his age -- he is about SO.. ..Even after a long service, his salary remains meagre. An unlettered man, his family expanded in a big way -- he has nine children. (Pushp K. Jain, 'On the Ofttrodden Tracks', The Times of India, April 27, 1989)

এখানে কি আগের রস পাচ্ছ ? নেই । তবুও shtiaq Ali নামের মানুষটার সম্বন্ধে একটা ধারনা ঠিকই পাওয়া যাচ্ছে । আগেরটার মত এখানে Literary Device ব্যবহৃত হয়নি । বরং সোজা সাপটা কয়েক লাইনে মানুষটার চেহারা, আর্থসামাজিক অবস্থা ইত্যাদির সুষ্ঠু বর্ণনা দেয়া হয়েছে । এটি Non-Literary Descriptive Prose এর একটা সুন্দর উদাহরণ ।

আশা রাখি বর্ণনাত্মক গদ্যের ধারনা স্পষ্ট হয়েছে । আগামী পোষ্টে আমরা বাকি দুই প্রকার গদ্যের আলোচনা করব । কোন সমস্যা থাকলে আমাকে জানাতে পারো এখানে  অথবা নিচে কমেন্ট করে ।